,

শিক্ষকদের হাতেই গড়ে উঠে একটি শিক্ষিত ও সভ্য জাতি : চবি উপাচার্য

বাংলাদেশ আজ বিশ্ব সভ্যতায় একটি উন্নয়ন ও মডেল রাষ্ট্রের প্রতিকৃৎ। দ্রুত সময়ের মধ্যে বিশ্বে যে কয়টি দেশ উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে এগিয়ে চলেছে তাদের মধ্যে অন্যতম বাংলাদেশ। একটি দেশ ও জাতি এগিয়ে যাওয়ার পেছনে যাদের সবচেয়ে অগ্রণী ভূমিকা রয়েছে যাদের তারা হলেন আলোকিত মানব সম্পদ। আর এ মানব সম্পদ গড়ে তোলার পেছনে যারা মূল কারিগরের ভূমিকা পালন করেন তারাই শিক্ষক। আর শিক্ষকদের হাতেই গড়ে উঠে একটি শিক্ষিত ও সভ্য জাতি। এ শিক্ষিত ও সভ্য জাতির নেতৃত্বে গড়ে উঠে একটি সুন্দর সমাজ ও পূথিবী।
এ সুন্দর সমাজ বিনির্মানের বাংলাদেশ গড়ার আধুনিক যাত্রা ডিজিটাল বাংলাদেশ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন যাত্রা ডিজিটাল বাংলাদেশর স্বপ্ন বাস্তবায়নে গণিতবিদেরও এগিয়ে আসতে হবে। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় গণিত অ্যালামনাই এসোসিয়েশনের পূণর্মিলনীতে প্রধান অতিথি বক্তব্যে চবি উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী উপরোক্ত মন্তব্য করেন। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সংগঠন গণিত অ্যালামনাই এসোসিয়েশন এর সুবর্ন জয়ন্তীর, প্রাক পুনর্মিলনী ও কৃতি শিক্ষর্থী সম্বর্ধণা গতকাল ০৬ জানুয়ারি বিকাল ৫ টায় নগরীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সভাপতি ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মোঃ আশরাফুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পুনর্মিলনীতে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।
সম্মানিত অতিথি ছিলেন গণিত বিভাগের অধ্যাপক ড. মোসলেহ উদ্দিন আহমেদ, চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের প্রাক্তন চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মোঃ ইউসুফ, অধ্যাপক ড. মোঃ আমান উল্লাহ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে চবি উপাচার্য বলেন, দেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রায় শিক্ষিত জনগোষ্ঠীর রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। আর এ অগ্রযাত্রার পেছনে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিত বিদদেরও রয়েছে অসামান্য অবদান।
তিনি আরো বলেন, জাতির পরিবর্তনে ও অগ্রগতিতে সুশিক্ষিত মানব সম্পদের রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। আর এর পেছনে অগ্রনী ভূমিকা রাখতে পারে গণিতবিদরাও।
সমাজ উন্নয়নে ও জাতি গঠনেও আরো গতিশীল ভূমিকা নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে গণিবিদদের। সংগঠনের কর্মকর্তা মোঃ মাজহারুল হক ও শিপন চন্দ্র দেবনাথ এর সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠান উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক কর্পোরেট ব্যক্তিত্ব মুহাম্মদ মহসীন চৌধুরী।
অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পরিমল কান্তি ধর, মোঃ আমজাদ হোসেন, মোঃ আবদুল আলীম, শ্রীবাস চন্দ্র দাস, মোঃ ইফতেখার মনির, বিধান দত্ত, ইউনুস আলী, মোঃ গিয়াস উদ্দীন, অধ্যাপক মোঃ ওসমান গণি, মনিলাল দাশ, কনক কুমার পুরকায়স্থ, লিটন চন্দ্র নাথ, ইমরুল কাদের ভূঁইয়া, কামাল হোসেন, রূপক কুমার রক্ষিত, মোঃ আলফাজ হোসাইন, মোঃ নুরুল আব্বাছ, মোঃ নিজাম উদ্দিন, হেলাল হোসেন চৌধুরী, আজিজুল হক নিউটন, আমিরুল মোস্তফা, সৌমেন বড়–য়া। আলোচনা সভাশেষে প্রধান অতিথি সদস্যদের সন্তানদের মধ্যে বিভিন্ন পরীক্ষায় মেধা তালিকায় উত্তীর্ণ ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে পুরষ্কার ও গণিত বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের সম্মাননা তুলে দেন।

Leave a Reply