,

Home » Top » প্রস্তুতি ম্যাচে টাইগারদের জয়

প্রস্তুতি ম্যাচে টাইগারদের জয়

নিদাহাস ট্রফি খেলতে বাংলাদেশ দল এখন শ্রীলঙ্কায়। গতকাল সন্ধ্যায় ত্রিদেশীয় সিরিজের অন্য প্রতিপক্ষ ভারতের বিপক্ষে খেলতে নামে স্বাগতিকরা। তার আগে সকালে গা গরমের ম্যাচ খেলতে নেমেছিলেন টাইগাররা। এ ম্যাচে ৪৫ রানের জয় পেয়েছে বাংলাদেশ।
কলম্বো ক্রিকেট ক্লাব মাঠে শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশের বিপক্ষে আগে ব্যাট করার সুযোগ পায় বাংলাদেশ।
এ ম্যাচে নিরোশান ডিকভেলা, সাদিরা সামারাবিক্রমা, লাকশান সান্দাকান, জেফ্রি ভ্যান্ডারসে, অ্যাঞ্জেলো পেরেরা, আসিথা ফার্নান্দো, লাহিরু কুমারার মতো জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা যোগ দেন।
প্রথম ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৫ উইকেটে হারিয়ে ১৮৬ রান সংগ্রহ করে টাইগাররা। যদিও শুরুটা মোটেও ভালো ছিলনা টাইগার ব্যাটসম্যানদের। প্রথম ওভারেই ড্রেসিংরুমে ফিরেন সৌম্য সরকার। শূন্য রানে এই ওপেনার ফেরার পর সাব্বির রহমান ফেরেন ১ রানের মাথায়। ১৪ রানে নেই দুই উইকেট।
দলের বিপর্যয়ে হাল ধরেন সাকিবের পরিবর্তে দলে ডাক পাওয়া উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান লিটন দাস। পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসল) খেলে আসা তামিম ইকবালকে এই ম্যাচে বিশ্রাম দেয়া হয়।
তার বদলে সৌম্যর সঙ্গে ব্যাট করতে নেমেই বাজিমাত করলেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান।
চার নম্বরে ব্যাট করতে নামা মুশফিক লিটনের সঙ্গে যোগ দেন। উভয়ের জুটি থেকে আসে ৫২ রান। প্রাথমিক ধাক্কা সামলে যখন লিটন ফেরেন তখন তার নামের পাশে যোগ হয় ৪০ রান। মাত্র ১৮ বলে এ রান করেন তিনি।
মুশফিকের সঙ্গে জুটি গড়েন টাইগার অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ। এই জুটি থেকে আসে ৭৪ রান। ৪৪ বলে ৬৫ রান করে আউট হন মুশফিক, ২৭ বলে ৪৩ রান করেন মাহমুদুল্লাহ।
এরপর আরিফুল হক নুরুল হাসান সোহানদের ছোট ছোট ইনিংসে শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশের বিপক্ষে সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৮৬।
বিপক্ষ দলের হয়ে ফার্নান্দো নেন ২ উইকেট, ড্যানিয়েলস এবং কুমারা তুলে নেন ১টি করে উইকেট। ১৮৬ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই লঙ্কানদের চেপে ধরে টাইগার বোলাররা। শেষ পর্যন্ত ১৯ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৪১ রান সংগ্রহ করেছে লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের দলটি।
বোর্ড একাদশের হয়ে ডিকওয়ালা ২৭, অ্যাঞ্জেলা পেরারা ২২ ও লাহিরু ১৯ রান সংগ্রহ করেন। টাইগারদের হয়ে রুবেল হোসেন, তাসকিন আহমেদ, নাজমুল হোসেন অপু ও মেহেদী হাসান মিরাজ দুটি করে উইকেট পান। এছাড়াও আবু হায়দার ও সৌম্য সরকার লাভ করেন ১টি করে উইকেট।

Leave a Reply